এই ব্লগে যা আছে

এটি একটি উন্মুক্ত ব্লগ। ব্লগের প্রকাশিত পোস্ট অন্য কোথাও প্রকাশ করলে অবশ্যই এই ব্লগের সৌজন্য দিতে হবে।

ই ব্লগ টি সঠিক ভাবে পরিচালনা করতে আমার কিছু আর্থিক সহযোগিতার প্রয়োজন। এমন কেউ কি আছেন যারা আমার এই ব্লগের জন্য আর্থিক সাহায্য করতে পারবেন? যারা করতে পারবেন তারা দয়া করে আমার সাথে যোগাযোগ করুণ। আপনার কোনো পণ্য,ছবি অথবা অন্য কিছু থাকলেও আমার ব্লগে বিজ্ঞাপন আকারে প্রকাশ করতে পারবেন। আমাকে ম্যাসেজ দিন ০১১৯২০৭৭৭৩৮ নাম্বারে।

আমার বাংলা পোস্ট ডট কম

আমার বাংলা পোস্ট ডট কম
একের ভিতর সব কিছু।

Like This Facebook Page

Like This Facebook Page
আমাদের পেইজকে লাইক দিন।

শুক্রবার, ১১ এপ্রিল, ২০১৪

যে ৬ টি কারণে আনারস খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য ভালো

 
স্বাস্থ্য ডেস্ক : বাজারে এখন চোখ বুলালেই চোখে পড়ে ছোট ছোট আনারস। ছোট্ট এবং হলদে প্রায় আনারসগুলো যে কারো নজর কাড়তে বাধ্য। শুধু নজর কাড়া নয় এই আনারসগুলো স্বাদেও বেশ অতুলনীয়। এক টুকরো আনারস মুখে দিলে অমৃতের স্বাদ পাওয়া যায়। যে কোনো ধরনের ফাস্টফুড জাতীয় খাবারের তুলনায় এই ছোট্ট ছোট্ট একেকটা আনারস অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর তা বলাই বাহুল্য। তারপরও অনেকে জেনে শুনে আনারস খেতে চান না। কিন্তু এই সময়ে আনারস খাওয়া শরীরে জন্য অত্যন্ত জরুরী। জানতে চান আনারসের স্বাস্থ্য উপকারিতা? চলুন তবে দেখে নেয়া যাক আনারস খাওয়া কেন আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য জরুরী।
দেহের পুষ্টির অভাব দূর করে আনারস
আনারস পুষ্টির বেশ বড় একটি উৎস। আনারসে রয়েছে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন এ এবং সি, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম ও ফসফরাস। এই সকল উপাদান আমাদের দেহের পুষ্টির অভাব পূরণে কার্যকরী ভূমিকা পালন করে। প্রতিদিন অল্প পরিমানে আনারস খেলে দেহে এইসকল পুষ্টি উপাদানের অভাব থাকবে না।
ওজন কমায় আনারস
শুনতে বেশ অবাক লাগলেও আনারস আমাদের ওজন কমানোয় বেশ সাহায্য করে। কারন আনারসে প্রচুর ফাইবার রয়েছে এবং অনেক কম ফ্যাট। সকালের যে সময়ে ফলমূল খাওয়া হয় সে সময় আনারস এবং সালাদে আনারস ব্যবহার অথবা আনারসের জুস অনেক বেশি স্বাস্থ্যকর। তাই ওজন কমাতে চাইলে আনারস খান।
হাড়ের সুস্থতায় আনারস
আনারসে রয়েছে প্রচুর পরিমানে ক্যালসিয়াম ও ম্যাংগানিজ। ক্যালসিয়াম হাড়ের গঠনে বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং ম্যাংগানিজ হাড়কে করে তোলে মজবুত। প্রতিদিনের খাবার তালিকায় পরিমিত পরিমান আনারস রাখলে হাড়ের সমস্যাজনিত যে কোনো রোগ প্রতিরোধ করা সম্ভব।
দাঁত ও মাড়ির সুরক্ষায় আনারস
আনারসের ক্যালসিয়াম দাঁতের সুরক্ষায় কাজ করে। মাড়ির যে কোনো সমস্যা সমাধান করতে বেশ কার্যকর ভূমিকা পালন করে। প্রতিদিন আনারস খেলে দাঁতে জীবাণুর আক্রমণ কম হয় এবং দাঁত ঠিক থাকে।
চোখের স্বাস্থ্য রক্ষায় আনারস
বিভিন্ন গবেষণায় দেখা যায় যে আনারস ম্যাক্যুলার ডিগ্রেডেশন হওয়া থেকে আমাদের রক্ষা করে। এই রোগটি আমাদের চোখের রেটিনা নষ্ট করে দেয় এবং আমরা ধীরে ধীরে অন্ধ হয়ে যাই। আনারসে রয়েছে বেটা ক্যারোটিন। প্রতিদিন আনারস খেলে এই রোগ হওয়ার সম্ভাবনা ৩০ শতাংশ পর্যন্ত কমে যায়। এতে সুস্থ থাকে আমাদের চোখ।
হজমশক্তি বৃদ্ধি করে আনারস
আনারস আমাদের হজমশক্তি বৃদ্ধি করতে বেশ কার্যকরী। আনারসে রয়েছে ব্রোমেলিন যা আমাদের হজমশক্তিকে উন্নত করতে সাহায্য করে। বদহজম বা হজম জনিত যে কোনো সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে প্রতিদিন আনারস খাওয়া অত্যন্ত জরুরী।

আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুণ।

 এই ব্লগে পড়তে কি সমস্যা হয়?আপনার কি টাকা বেশি খরচ হয়ে যায়?

সর্বশেষ প্রকাশিত